লালমনিরহাট বার্তা
হস্তান্তরের তিন বছরেও চালু হয়নি ২৫০ শয্যা হাসপাতাল
বার্তা ডেক্সঃ | ২৮ জুন, ২০২২ ৩:১৬ AM
হস্তান্তরের তিন বছরেও  চালু হয়নি  ২৫০ শয্যা হাসপাতাল
মাদারীপুর জেলা সদরের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল প্রশাসনিক অনুমোদন পেলেও পদসৃজনের অভাবে দীর্ঘদিনেও চালু হয়নি। গণপূর্ত বিভাগ হাসপাতাল ভবনের সম্পূর্ণ নির্মাণকাজ শেষে প্রায় দুই বছর ৯ মাস আগে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে হস্তান্তর করেছে। এদিকে ভবনে রক্ষিত অনেক মূল্যবান যন্ত্রপাতি বিনষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে। কবে নাগাদ জেলার একমাত্র ২৫০ শয্যার হাসপাতালটি চালু হবে তা সংশ্লিষ্ট কেউ বলতে পারেন না। হাসপাতালটি সময়মতো চালু না হওয়ায় স্থানীয় জনমনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
সংশ্লিষ্ট ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জেলা সদরে ২০১৪ সালে হাসপাতালটির নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৯ সালের জুন মাসে সম্পূর্ণ কাজ শেষ হয়। প্রায় ৩০ কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হাসপাতাল ভবনটি জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ২০১৯ সালের শেষের দিকে বুঝে নেয়। হাসপাতাল সংশ্লিষ্ট বেশ কয়েক জন কর্মকর্তা-কর্মচারী দুঃখ করে জানিয়েছেন, জরুরি ভিত্তিতে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালটি চালু করা না হলে ভবনে রক্ষিত অনেক মূল্যবান যন্ত্রপাতি অকেজো হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।
সিভিল সার্জন ডা. মুনীর আহমেদ খান জানান, ২৫০ শয্যা হাসপাতালের পদসৃজন (লোকবল), আসবাবপত্র ও অষুধপত্রের অভাবে বিশেষ করে রোগীদের থাকার সিট, আলমারি, বেড সাইড লকার নেই। জনবল নিয়োগসহ সামগ্রিক বিষয়টি ইতিমধ্যে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আএমও) ডা. মো. নুরুল ইসলাম জানান, বর্তমানে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে কনসালট্যান্টের পদসহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীর পদ শূন্য রয়েছে। ফলে হাসপাতালে আগত রোগীদের চিকিত্সা দিতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে। ২৫০ শয্যার হাসপাতালটি চালু হলে রোগীর চাপ অনেকাংশে কমে যাবে। রোগীরা আধুনিক সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

মাদারীপুর গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. কামরুল ইসলাম খান জানান, জেলা সদরের ২৫০ শয্যার হাসপাতালটির সম্পূর্ণ কাজ শেষ করে ২০১৯ সালের শেষের দিকে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়া ভবনটির ৭ম তলায় বর্তমানে আইসিইউ নির্মাণের কাজ চলছে। ইতিমধ্যে ১০টি কার্ডিয়াক মনিটর হাসপাতালে এসে পৌঁছেছে। ৭ম তলার ভবন নির্মাণকাজ অসমাপ্ত থাকায় মেসিনগুলো বসানো যাচ্ছে না। (সুত্রঃইত্তেফাক)
এই বিভাগের আরও খবর