লালমনিরহাট বার্তা
আরিয়ানকে বাঁচাতে উকিলের শরণাপন্ন শাহরুখ
বার্তা ডেস্কঃ | ১৩ অক্টোবর, ২০২১ ৪:২০ AM
আরিয়ানকে বাঁচাতে  উকিলের শরণাপন্ন শাহরুখ
ছেলের জন্য এবার নতুন উকিল নিয়োগ করতে চলেছেন শাহরুখ খান। নিষিদ্ধ মাদক কাণ্ডে জড়িয়ে সুপারস্টার শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান এখন মুম্বইয়ের আর্থার রোড জেলে বন্দি। তবে মুম্বাইয়ের নামী উকিল আইনজীবী সতীশ মানশিণ্ডে আরিয়ানের জামিন মঞ্জুর করতে পারেননি। তাই শাহরুখ এবার অমিত দেশাইকে ছেলের জামিন পাওয়ার জন্য নিযুক্ত করেছেন।

দেশাই হলেন সেই আইনজীবী যিনি সালমান খানকে ২০০২ সালের হিট অ্যান্ড রান কেস থেকে ছাড়িয়েছিলেন। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে জামিন শুনানির জন্য অমিত দেশাই সালমান খানের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। এই মামলায় সালমানকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়ার পর এই আইনজীবী নিম্ন আদালতের আদেশকে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন। অমিত দেশাইয়ের শুনানির পর ২০১৫ সালের মে মাসে সালমানকে এই মামলায় ৩০,০০০ টাকার বিনিময়ে জামিন দিয়েছিল আদালত।
১১ অক্টোবর অমিত আরিয়ানের জন্য কোর্ট গিয়েছিলেন। তিনি জামিনের আর্জি দাখিল করেছেন। এরপর এনসিবি কাউন্সিল আদালত জানিয়েছে, তথ্য উদ্ঘাটনের জন্য তাদের আরও এক সপ্তাহ সময় প্রয়োজন। আরিয়ানের জামিন প্রসঙ্গে অমিত দেশাই বলেছেন, ‘আমার মক্কেল গত এক সপ্তাহ ধরে জেলের মধ্যে রয়েছেন। জামিনের আবেদন তদন্তের ওপর নির্ভর করে না। আমি জামিনের জন্য বলছি না। আমি তারিখের জন্য বলছি। প্রশাসনিক কারণে কারও মুক্তি আটকে যাবে, এটা হতে পারে না। এনসিবি তদন্ত করতেই পারে।’ সেই সঙ্গে দেশাই বলেন, ‘আর যদি আরিয়ানের কথা বলি, তা হলে বড় জোর একবছরের শাস্তি হবে। তার বিরুদ্ধে কোনও তথ্যপ্রমাণ নেই। তার কাছ থেকে কিছু পাওয়া গিয়েছে, এমন কোনও প্রমাণও নেই। আর এরপরও যদি এনসিবি বলে তাদের আরও এক সপ্তাহ সময় চাই, তা হলে বলতে হয়, এটা এক বছরের শাস্তির জন্য।’
শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান দায়রা আদালতে জামিনের আবেদন করেছিলেন। যার কোনও নির্দেশ এখনও আদালতের তরফ থেকে আসেনি। ২ অক্টোবরের মামলায় এনসিবি তাকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছিল। গত কয়েকদিন আরিয়ানকে রাখা হয়েছে মুম্বইয়ের আর্থার রোড জেলে।কোর্টের তরফ থেকে শাহরুখ পুত্রের জামিনের আর্জি নাকচ হয়ে যায়। আর তারপর আরিয়ান হাজির হন দায়রা আদালতে।

দায়রা আদালতে নিজের বাবার নাম না বলে আরিয়ান উল্লেখ করেছেন, তিনি একজন বলিউড তারকার ছেলে। তার ব্যাচেলার ডিগ্রি রয়েছে। এর পাশাপাশি ফাইন আর্টস, সিনেম্যাটিক আর্টসেও ডিগ্রি রয়েছে। তিনি আমেরিকার ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ ক্যালিফোর্নিয়া থেকে ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন প্রোডাকশনের কোর্সও করেছেন। আরিয়ান আরও বলেছেন, ‘আমি দেশের দায়িত্বশীল এক নাগরিক। আর আমি নিরপরাধ। এখনও পর্যন্ত আমার রেকর্ড ভাল। কোনও বেআইনি কাজ করিনি। এমন কোনও কাজে আমার নামও আসেনি। এই মামলায় আমার নাম ভুল করে চলে এসেছে।’ (সুত্র: ইত্তেফাক)
এই বিভাগের আরও খবর