লালমনিরহাট বার্তা
ইউক্রেন রাশিয়া যুদ্ধ: ১৯তম দিনে যা যা ঘটেছে
বার্তা অনলাইন ডেস্কঃ | ১৫ মার্চ, ২০২২ ৪:১৭ AM
ইউক্রেন রাশিয়া যুদ্ধ: ১৯তম দিনে যা যা ঘটেছে
ইউক্রেনে রাশিয়ান হামলার উনিশতম দিনে এসে প্রথমবারের মতো নির্ধারিত একটি রুট কিছু বেসামরিক নাগরিক মারিউপোল শহর ছাড়তে সক্ষম হয়েছে।
প্রায় দু সপ্তাহ ধরে অব্যাহত গোলাবর্ষণ, খাদ্য, পানি ও ঔষধ ফুরিয়ে আসা এবং বহির্বিশ্ব থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতার কারণে ইউক্রেনের দক্ষিণ পূর্ব দিকের এই গুরুত্বপূর্ণ বন্দর নগরীটিতে চরম মানবিক সংকট চলছে।

এর আগে কয়েক দফায় বেসামরিক নাগরিকদের শহর ছাড়ার সুযোগ দেয়ার সমঝোতা হলেও প্রত্যেকবারেই সে সমঝোতা পরে ভেঙ্গে গেছে।
সোমবার মারিউপোল সিটি কাউন্সিল জানায় যে ১৬০টি ব্যক্তিগত যানবাহন শহর ছাড়তে পেরেছে এবং দেশটির উত্তর পশ্চিম দিকের তুলনামূলক নিরাপদ শহর জাপারোঝিয়া শহরের পথে রয়েছে।
ড্রোন থেকে নেয়া ফুটেজে মারিউপোল শহরের যে ধ্বংসচিত্র দেখা যাচ্ছে তাতে এটি পরিষ্কার যে অ্যাপার্টমেন্ট ব্লকগুলোতে বোমা হামলা হয়েছে এবং ধ্বংসস্তূপ থেকে ধোঁয়া উঠছে।হৃদয়বিদারক আপডেট
গত সপ্তাহে মারিউপোলের একটি প্রসূতি হাসপাতালে বোমা হামলা করেছিলো রাশিয়া। ধ্বংসস্তূপের মধ্য থেকে দুজন গর্ভবতী মা পালাচ্ছেন এমন ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সারাবিশ্বে।
এর মধ্যে সোমবার জানা গেছে তাদের একজন গর্ভের শিশুসহ মারা গেছে। মৃত শিশুটি জন্ম দেয়ার পর চিকিৎসকরা ওই নারীকে বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা করেও সফল হননি।

ইউক্রেন গণকবর
মারিউপোলের ভয়াবহ পরিস্থিতির আরেকটি উদাহরণ হলো বেসামরিক নাগরিকদের মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় শহরের বেশ কয়েক জায়গায় গণকবর খুঁড়তে হয়েছে।
শহরের ডেপুটি মেয়র জানিয়েছেন সড়ক পরিচ্ছন্নতাকর্মী আর সড়ক পুনঃনির্মান দলের সদস্যরা রাস্তায় পড়ে থাকা মৃতদেহগুলো সংগ্রহ করছে।
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের একজন উপদেষ্টার হিসেবে যুদ্ধ শুরুর পর থেকে প্রায় আড়াই হাজার মানুষ মারা গেছে শহরটিতে।

স্থানীয় কর্মকর্তাদের কাছ থেকে বিবিসিও প্রায় একই ধরণের তথ্য পেয়েছে। যেমন কিয়েভের কাছে বুচা শহরে একটি গণকবরেই ৬০ জনকে কবর দেয়া হয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্র চীনকে সতর্ক করলো
যুক্তরাষ্ট্রের অনেকগুলো গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী রাশিয়া চীনের কাছ থেকে সামরিক সহায়তা চেয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্র হুঁশিয়ার করে বলেছে নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘনের চেষ্টা করলে কঠোর পরিণাম ভোগ করতে হবে।

চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য ছড়ানোর অভিযোগ করেছেন আর রাশিয়া এ ধরণের সামরিক সহায়তা চাওয়ার খবর প্রত্যাখ্যান করেছে।
দুই বিশ্ব শক্তির মধ্যে চরম উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যে সোমবার জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস সতর্ক করে বলেছেন যে পরিস্থিতির আরও অবনতি মানবতার প্রতি চরম হুমকি হবে। তিনি পারমাণবিক দ্বন্দ্বের সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করে বলেছেন তিনি সবাই সংযত হবার আহবান জানিয়েছেন।
এক অলিগার্কের প্রাসোদপম বাড়ি
ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার পর আলোচনায় এসেছে রাশিয়ান ধনকুবেরদের বিলাসবহুল বাড়িগুলোও। এদের অনেকেই ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ।
সোমবার লন্ডনে এমন একটি বাড়ির ব্যালকনি লক্ষ্য করে বিক্ষোভ হয়েছে। বাড়িটির মালিক রাশিয়ান জ্বালানি টাইকুন ওলেগ ডেরিপাস্কা। যুক্তরাজ্য সরকার ইতোমধ্যেই তাকে নিষেধাজ্ঞার আওতায় এনেছে। বিক্ষোভকারীরা বলছেন ওই ভবনে ইউক্রেনের শরণার্থীদের রাখার দাবি জানাচ্ছেন তারা।
যুক্তরাজ্য সরকার বিষয়টি পরীক্ষা করে দেখছে যে নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা অলিগার্কদের বাড়িগুলো শরণার্থীদের জন্য ব্যবহার করা যায় কিনা।
তবে প্রধানমন্ত্রীর অফিসের একজন মুখপাত্র বলেছেন এটি করলেও সেজন্য নতুন আইনের দরকার হবে।
জনপ্রিয় পাব ধ্বংস
খারকিভ শহরে আর্নেস্ট হেমিংওয়ের নামে থাকা ব্যাপক জনপ্রিয় ওল্ড হ্যাম বার রাশিয়ার গোলায় ধ্বংস হয়ে গেছে।
সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে যে ভবনে পাবটি ছিলো সেটি ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে।
এর মালিক এখন পূর্ব ইউক্রেনে। বিবিসিকে তিনি বলেছেন একদিন পুরনো শহরে ফিরে এসেছে বারটি আবার চালু করবেন বলে আশা করছেন তিনি। "আমরা জয়ী হবো এবং হেম আবার জেগে উঠবে," বলছিলেন তিনি।

রাশিয়ার ধীর গতির যাত্রা অব্যাহত
রাশিয়া একসাথে কয়েকটি ফ্রন্টে আগ্রাসন চালাচ্ছে।
ইউক্রেনের প্রতিরোধ যদিও প্রত্যাশার চেয়েও শক্তিশালী কিন্তু রাশিয়ার বাহিনী দক্ষিণে একের পর এক জায়গা দখল করছে এবং ধীরে ধীরে কিয়েভের দিকে অগ্রসর হচ্ছে।(সুত্র:বিবিসি বাংলা)
এই বিভাগের আরও খবর