লালমনিরহাট বার্তা
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাপাতালে একটি বেডেই ৩-৪টি করে শিশুদের রাখা হচ্ছে
বার্তা ডেস্কঃ | ২৯ আগস্ট, ২০২১ ৪:২৬ AM
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাপাতালে একটি বেডেই ৩-৪টি করে শিশুদের রাখা হচ্ছে
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাপাতালে বিশেষ করে শিশু ওয়ার্ড গুলোতে তিল ধারণের জায়গা নেই। বিশেষ করে ডেলিভারি রোগীর সংখ্যা আনুপাতিক বৃদ্ধির ফলে এমন হয়েছে বলে জানায় রামেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এতে করে চিকিৎসাসেবা প্রদানে রীতিমত বিপাকে পরেছেন ডাক্তার ও নার্সরা।
সরেজমিন দেখা গেছে, হাসপাতালের ২৪, ৬ ও ১০ নং ওয়ার্ডসহ সবকয়টি ওয়ার্ডে একটি বেডেই ৩-৪টি করে শিশুদের রাখা হচ্ছে। এসব শিশুরা নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। জ্বর, সর্দি, কাশি, নিউমোনিয়াসহ অন্যান্য রোগ হচ্ছে তাদের। এভাবেই গাদাগাদি করে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন রামেক হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তাররা।
জ্বর, সর্দি কাশি, নিউমোনিয়া নিয়ে অনেকে দূর-দূরান্ত থেকে রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতলে ভর্তি হতে আসেন। এসময় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট উপজেলা এলাকা থেকে গত মঙ্গলবার রামেকে ভর্তি করা হয় ফরিয়াকে। তার প্রসাবে ইনফেকশন ও জ্বর। এসময় জ্বর বেড়ে গেলে মা-বাবা অস্থির হয়ে পরেন। রামেক হাসপাতলের ২৪নং ওয়ার্ডের সামনে এমন দৃশ্যও চোখে পড়ে।
রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বলেন, শিশু ওয়ার্ড বাড়ানো ছাড়া কোনো উপায় নেই। ইতোমধ্যে টিনশেড দিয়ে শিশু ওয়ার্ড করা হচ্ছে। এরই মধ্যে একটি সম্পূর্ণ হতে যাচ্ছে। তবে আর বেশ কয়েকটি ওয়ার্ড করার পরিকল্পনা রয়েছে। এসব ওয়ার্ড বেড়ে গেলে হয়তো এরকম গাদাগাদি করে থাকতে হবে না।
এই বিভাগের আরও খবর