লালমনিরহাট বার্তা
এবার নারী উন্নয়ন ফোরামের সভাপতির বিরুদ্ধে সাধারণ সম্পাদকের অভিযোগ
স্টাফ রিপোটার : Jun 3, 2021, 6:24:49 PM সময়ে

এবার নারী উন্নয়ন ফোরামের সভাপতির বিরুদ্ধে সাধারণ সম্পাদকের অভিযোগ

 নামেই নারী উন্নয়ন ফোরাম, যার নেই কোন কার্যক্রম। শুধু সরকারী বরাদ্দেই সীমাবদ্ধ। এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন গত ১ জুন "লালমনিরহাট বার্তার অনলাইন ভার্সনে প্রকাশ হয়। সংবাদ প্রকাশের দিনই নারী উন্নয়ন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক লাইলী বেগম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পত্রে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদকসহ আরে ৬ জন সদস্যের স্বাক্ষর রয়েছে।  
এদিকে নারী উন্নয়ন ফোরামের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় সংগঠনের সভাপতি ও আদিতমারী উপজেলা পরিষদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন আক্তার এ প্রতিবেদকের বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি প্রদান করেন। 

আজ (৩ জুন) বৃহস্পতিবার আদিতমারী উপজেলা পরিষদ চত্বরের বাহিরে একটি চায়ের হোস্টেলের সামনে প্রকাশ্যে মামলার হুমকি দেন তিনি।   

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) বরাবরে দাখিলকৃত অভিযোগ থেকে জানাগেছে, নারী উন্নয়ন ফোরামের সভাপতি জেসমিন আক্তার এডিপি থেকে বরাদ্দকৃত অর্থের কোন গোপন রাখেন। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক লাইলী বেগন একাধিকবার বরাদ্দের বিষয়ে জানতে চাইলেও কোন ধরনের বরাদ্দ পাওয়া যায়নি বলে সভাপতি সাফ জানিয়ে দেন। তারা সংবাদ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে জানতে পেরেছেন তাদের সংগঠনের নামে এক লক্ষ ৪০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। 

লিখিত অভিযোগে তারা দাবী করেছেন,এসব বরাদ্দকৃত অর্থ স্বেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে একক সিদ্ধান্তে সভাপতি ক্ষমতার অপব্যবহার দেখিয়ে ব্যয় করবেন। তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) চিত্র রঞ্জন সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। ওই লিখিত অভিযোগ পত্রে সংগঠননের আরো ৬ জন সদস্য স্বাক্ষর করেছেন।  তারাও একই দাবী করেছেন।

ভাদাই ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত সদস্য ও নারী উন্নয়ন ফোরামের সদস্য জয়ত্রী রাণী অভিযোগ পত্রে স্বাক্ষরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বরাদ্দের কথা আমরা জানতে চাইলেও আমাদেরকে তিনি (সভাপতি) বলেন না। তিনি নিজের ইচ্ছেমত সবকিছু করতে চাইলেতো আমরা দিতে পারি না। তিনি আরো বলেন, আমরা চাই স্বচ্ছতা৷ 

নারী উন্নয়ন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক লাইলী বেগম বলেন, আমরা বরাদ্দের বিষয়ে একাধিকবার জানতে চাইলেও সভাপতি বলেন, কোন বরাদ্দ পাওয়া যায়নি। তিনি আরো বলেন, সাংবাদিকদের মাধ্যমে আমরা বরাদ্দের বিষয়ে জানতে পেরে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেছি।

নারী উন্নয়ন ফোরামের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন আক্তার উল্টো এ প্রতিনিধির বিরুদ্ধে মামলার হুমকি দেন। আদিতমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) চিত্র রঞ্জন সরকার এধরনের একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।          
                                                                         
উল্লেখ্য,  প্রতিবছরের মতো  এবছরও বার্ষিক  উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) থেকে ২০২০- ২১ অর্থবছরে নারী উন্নয়ন ফোরামের জন্য ফাউচারমূলে  এক লক্ষ ৪০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আর এ টাকা ফাউচার মূলে খরচ করে উত্তোলন করতে পারবেন। কিন্ত সংগঠনের কোন কার্যক্রম দৃশ্যমান না থাকায় বরাদ্দকৃত অর্থ আটকে দিয়েছেন এডিপি'র সভাপতি ও আদিতমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) চিত্ত রঞ্জন বর্মন।