লালমনিরহাট বার্তা
১১ লক্ষ কোটি টাকা রাখতে কতবড় গোডাউন লাগবে?
বার্তা ডেস্কঃ | ১৫ জানু, ২০২২ ৮:৫৭ AM
১১ লক্ষ কোটি টাকা রাখতে  কতবড় গোডাউন লাগবে?
জাতীয় পত্রিকায় ১৬ বছরে পাচার ১১ লক্ষ কোটি টাকা! শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। ১১ লক্ষ কোটি টাকা রাখতে কতবঢ় গোডাউন লাগবে ? জীবন বাজী রেখে বাংলাদেশ স্বাধীন করে দেশের সাধারণ মানুষ সহ আমরা মুক্তিযোদ্ধারা শেষ বয়সে জীবন রক্ষায় স্বাস্থ্যসম্মত খাবার, চিকিৎসা সেবা, ঔষধ কেনার টাকা পায়না। থাকার যায়গা নেই। অথচ দেশের লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়। বিদেশে সাহেব পাড়া, বেগম পাড়া তৈরী হয়। সেখানে সাহেবদের বেগম সাহেবরা ছেলে মেয়ে নিয়ে রাজার হালে জীবন যাপন করে। এটাও নাকি দেশের উন্নয়ন। পাচার হওয়া টাকাগুলোর মালিক দেশের কৃষক, শ্রমিক, মেহনতীসহ সর্বস্তরের সাধারন মানুষ। তারা যদি একবার জানতে পারে যে, সরকার তাদের কাছ থেকে মাত্রারিক্ত যে ভ্যাট ট্যাক্স আদায় করে টাকা নেয়। পাচারকৃত টাকা সেই টাকা। সরকারগুলো জনগণের কাছ থেকে আদায়কৃত ভ্যাট ট্যক্সের টাকা উন্নয়ন ও সেবার নামে বরাদ্দ নিয়ে তাদের লোকজন ডান হাতি বাম হাতি করে চোরাই পথে বিদেশে পাঁচার করে।
৫০ বছর ধরে এভাবেই টাকা পাচার হচ্ছে। টাকার মালিকরা যদি কোন ক্রমে জানতে পারে যে, তাদের টাকা চোরাই পথে বিদেশে পাচার হয়েছে। সেকারনে তারা গরীব। বেঁচে থাকার অবলম্বন নাই। পুঁজি নাই। বাড়ী ঘর নাই। ব্যবসা বাণিজ্য নাই। চিকিৎসায় ঔষদ নাই। তাদের টাকাই তাদেরই দান খয়রাত হিসেবে এমপি, মন্ত্রী, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বাররা দেয়। সেখান থেকেও তারা চুরি করে। তাহলে দেশের মানুষ লগি বৈঠা নিয়ে নেমে আসবে। পালানোর জায়গা থাকবেনা। আর কত মিথ্যাচার? গ্রামে গেলে একজন কৃষক প্রশ্ন করলেন ১১ লক্ষ কোটি টাকা রাখতে কতবড় গোডাউন লাগবে? উত্তর দিতে পারিনি। এম জে কাদরি মন্তব্য করেছেন সম্পদ পাচার বন্ধ ছিলো স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম দাবি। সেই ব্রিটিশ আমলে শুরু হওয়া সম্পদ পাচার বন্ধ হযনি আজও। অথচ কত পরির্বতনেই না হল জনগনের আতœত্যাগ, আতœদানে, কিন্তু সম্পদ পাচার বন্ধ হলোনা। ঔপনিবেশিক রাষ্ট্র ব্যবস্থা অটুট থাকাই কি এই জন্য দায়ি নয়? শরিফুল ইসলাম মন্তব্য ররেছেন মাদক ব্যবসায়ীদের যদি ক্রসফায়ার হয় তাহলে, এই লুটেরা-দুর্নীতিবাজদের ক্রসফায়ারে অসুবিধা কোথায়। (লেখক: বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশার)
এই বিভাগের আরও খবর