লালমনিরহাট বার্তা
দেশজুড়ে বইছে ঈদ আনন্দ, চলছে পশু কোরবানি
স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা | ১৭ জুন, ২০২৪, ১:১১ PM
দেশজুড়ে বইছে ঈদ আনন্দ, চলছে পশু কোরবানি

মহান আল্লাহর অপার অনুগ্রহ লাভের আশায় সারাদেশে উদযাপিত হচ্ছে মুসলমানদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা। মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সামর্থ্য অনুযায়ী পশু কোরবানি করছেন।সোমবার (১৭ জুন) সকালে ঈদের নামাজ শেষেই পশু কোরবানিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন মুসলমানরা। দেশজুড়ে পাড়া-মহল্লার অলিগলিতেই পশু কোরবানির দৃশ্য চোখে পড়ে।জাতীয় ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিতজাতীয় ঈদগাহ মাঠে সকাল সাড়ে ৭টায় ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঈদের প্রধান জামাতে অংশ নিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন, প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান,  ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, মন্ত্রীপরিষদ সদস্য, সংসদ সদস্য, সুপ্রিম কোর্ট ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতিরা।এছাড়াও জাতীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় করেন রাজনৈতিক নেতা, সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকসহ নানান শ্রেণিপেশার ও বয়সের মুসল্লিরা।রাজধানীতে ঈদ আয়োজন রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কোথাও বাসার নিচের গ্যারেজে, কোথাও বাসার সামনের রাস্তায়, আবার কোথাও এলাকার ফাঁকা মাঠের মধ্যে পশু কোরবানি চলছে।এদিকে, চুক্তিতে পশুর মাংস কাটতে আসা কসাইরাও ব্যস্ত সময় পার করছেন। একটার পর একটা পশুর চামড়া ছাড়িয়ে মাংস প্রস্তুত করে দিচ্ছেন তারা।চট্টগ্রামে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত, চলছে পশু কোরবানিচট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ৭টায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) তত্ত্বাবধানে জমিয়তুল ফালাহ মসজিদ মসজিদে প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। একই মসজিদে সোয়া ৮টায় দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবার নামাজ শেষে খুতবা দেওয়া হয়। খুতবা শেষে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে দোয়া করা হয়। মসজিদটিতে শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এবং বিএনপি নেতা মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন নামাজ আদায় করেন।নামাজ শেষে ফিলিস্তিনিদের জন্য বিশেষ দোয়াআল্লাহর উদ্দেশে পশু কোরবানির আগে মসজিদ ও ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হয়েছে ঈদুল আজহার নামাজ। নামাজের আগে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় ধর্মীয় বিধিবিধান, নিয়ম মেনে কোরবানি করা, অসহায়দের মাঝে কোরবানির গোশত বিতরণের বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেন ইমামরা। নামাজ শেষে সব জায়গায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। দেশজুড়ে ফিলিস্তিনের নির্যাতিত মুসলমানদের নিয়ে প্রার্থনা করা হয়েছে। পাশাপাশি দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।সিলেটে জলমগ্ন ঈদ, বন্যা পরিস্থিতির অবনতিভারি বৃষ্টিতে সিলেট নগরে ভয়াবহ জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। পানিতে তলিয়ে গেছে নগরের বেশির ভাগ এলাকা। ঈদের সকালে এমন পরিস্থিতি দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী।জলাবদ্ধতার কারণে নগরের অনেক ঈদগায়ের ঈদের জামাত পেছানো হয়েছে। বাসা বাড়ি ও সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় কোরবানি দেয়া নিয়েও দুশ্চিন্তায় স্থানীয়রা।এদিকে পাহাড়ি ঢলে নগরের বাইরে উপজেলাগুলোতে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। বিশেষত সুনামগঞ্জ শহরে ঢুকে পড়েছে বন্যার পানি।  

এই বিভাগের আরও খবর