লালমনিরহাট বার্তা
রংপুরে হিন্দু পাড়ায় তান্ডবের মামলায় প্রধান আসামী শহিদ সহ ৫১ জনের জামিন না মঞ্জুর
রংপুর অফিসঃ | ৭ আগস্ট, ২০২২ ১২:১৭ PM
রংপুরে হিন্দু পাড়ায় তান্ডবের মামলায় প্রধান আসামী শহিদ সহ ৫১ জনের জামিন না মঞ্জুর
রংপুরের পীরগঞ্জে হিন্দু অধুষিত মাঝিপাড়ায় হামলা করে বাড়ি ঘরে আগুন দেয়া মালামাল লুট সহ তান্ডবের মামলায় দীর্ঘ ৯ মাস পর মামলার প্রধান আসামী শহিদ ওরফে শহিদুজ্জামান মন্ডল সহ ৫১ জন আসামী আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিনের আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক সকলের জামিন না মজ্ঞুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। আজ রোববার দুপুরে রংপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত ১ এর বিচারক এস এম শফিকুল ইসলাম এ আদেশ প্রদান করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পীরগঞ্জ আমলী আদালতের জিআরও শহিদুল ইসলাম।
চাঞ্চল্যকর এই মামলাটি পীরগঞ্জ থানার এস আই ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে ১৮ অক্টোবর ২০২১ইং সালে ১৪৬ জন আসামীর নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন তদন্ত শেষে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই মাহবুব হোসেন সকল আসামীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জসীট দাখিল করেন। মামলার প্রধান আসামী শহিদ ওরফে শহিদুজ্জামান সহ শতাধিক আসামী দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিলো। আজ রোববার দুপুরে প্রধান আসামী সহ ৫১ জন আসামী আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিনের আবেদন করেন। অন্যান্য আসামীরা হলেন আতাউর রহমান, মোজ্জল হোসেন, রুবেল সরকার, সাইফুল তালুকদার, সিরাজুল ইসলাম, বকুল মিয়া, মিলন মিয়া, আলফাজুর রহমান, রিপন আকন্দ, সুলতান আহাম্মেদ, ফাহিম, কাওসার আলী, হাফিজার রহমান, হারুন, অপিরুল ইসলাম, শাহিন, মিজানুর রহমান, বাবলু, শফিকুল , তাজুল ইসলাম, পিয়াস মিয়া, জাহাঙ্গীর হোসেন, পাপ্পু মিয়া, গেদা ওরফে জেয়াদ আলী, ফয়জার রহমান, খুশি মিয়া, জয়নাল আবেদীন, নজরুল ওরফে রানা, লিটন, গোলাম মোস্তফা, আরিফুল ইসলাম, সাদেকুল, রাসেল , জিল্লুর রহমান, রোকন , মশিউর , সাদেকুল ইসলাম, হাবিবর রহমান, মোহাম্মদ আলী, সুমন, মালেক, রাশেদ , হৃদয়, বাশিদুল ইসলাম, সুমন মিয়া, কাইয়ুম আলী, হুমায়ুন ও শরিফুল ইসলাম।
শুনানী শেষে বিজ্ঞ বিচারক সকল আসামীর জামিন না মজ্ঞুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আসামী পক্ষের আআনিজিবী ব্যারিষ্টর আবু সাঈদ জানান আসামীরা সকলেই সহায় সম্বলহীন ও শ্রমজিবী তাদের পুলিশ অন্যায় ভাবে মামলায় আসামী করেছে।
উল্লেখ্য, ফেসবুকে ধর্মীয় অবমাননাকর ষ্টাটাস দেবার ঘটনায় ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর তারিখে রংপুরের পীরগজ্ঞ উপজেলার বড় করিমপুর কসবা মাঝিপাড়া ও দক্ষিন মাঝি পাড়ায় সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে অন্তত ৩০টি বাড়ি ঘরে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়া মালামাল ভাংচুর ও লুট পাট করে। এ ঘটনায় ৩টি আইসিটি আইনে ও একটি হিন্দু পাড়ায় তান্ডবের ঘটনায় একটি সহ ৪টি মামলা দায়ের করে পুলিশ। ঘটনার পর পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে অন্তত ৫০ জনকে গ্রেফতার করে। অন্যান্য আসামীরা দীর্ঘদিন ধরে পলাতক রয়েছে বলে কোট জিআরও শহিদুল ইসলাম।
এই বিভাগের আরও খবর