লালমনিরহাট বার্তা
রংপুরে আন্তজেলা অপহরণ চক্রের মূলহোতা সহ ২ জন গ্রেপ্তার
রংপুর অফিসঃ | ২০ জানু, ২০২২ ১১:৩৮ AM
রংপুরে আন্তজেলা অপহরণ চক্রের মূলহোতা সহ ২ জন গ্রেপ্তার
রংপুরের গঙ্গাচড়ার আন্তঃজেলা অপহরণ ও মুক্তিপণ আদায়কারী চক্রের মূল হোতাসহ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৩ । আজ ২০ জানয়ারি বেলা ১১ টায় র‌্যাব-১৩ এর কার্যালয়েএক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন র‌্যাব-১৩ এর অধিনায়ক রেজা আহমেদ ফেরদৌস।অপহরণকারী ও মুক্তিপণ চক্রের সক্রিয় সদস্যরা হলো বাচ্চু চন্দ্র(৫২), স্বপন রায় (২২) ও খাদিজা বেগম (৩৭)। তাদেরকে পর্বে অস্ত্র, গুলি ও দেশীয় অস্ত্র সহ গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।
র‌্যাব জানায়, খুলনার খালিশপুর গোয়ালখালী’র দুইজন নার্সারী ব্যবসায়ী অনলাইন পেজের মাধ্যমে ব্যবসা করে আসছিলো। সেই সূত্র ধরে ইছা মিয়া ও তার সহযোগি আব্দুল লতিফ খুলনা খালিশপুরে চারা ক্রয়ের উদ্যেশ্যে যান এবং রংপুরের মাটি পরীক্ষা করার জন্য খুলনার ওই ব্যবসায়ীকে আমন্ত্রণ জানান। সেই আমন্ত্রণে খুলনার ব্যবসায়ী গত ১৩ জানুয়ারি আনুমানিক রাত সাড়ে ১০ টায় রংপুর মডার্ণ মোড়ে পৌছালে অপহরণকারী ও মুক্তিপণ চক্রের সদস্যরা মোটরসাইকেলে করে গংগাচড়া উপজেলার ফুলবাড়ির চরড়া গ্রামে জনৈক রুহুল আমিনের বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে তাদের একটি নির্জন কক্ষে হাত পা বেঁধে পাঁচ লক্ষ টাকা টাকা মুক্তিপন দাবী করে এবং ভয়ভীতি দেখিয়ে বিকাশের মাধ্যমে স্বজনের কাছে ২০ হাজার টাকা আদায় করে।বিকাশের লেনদেনের সূত্র ধরে ১৪ জানুয়ারী র‌্যাব-১৩ অপহৃত ব্যক্তিকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে এবং অপহরণকারী ও মুক্তিপণ চক্রের সক্রিয় সদস্য বাচ্চু চন্দ্র, স্বপন রায় ও খাদিজা বেগমকে অস্ত্র, গুলি ও দেশীয় অস্ত্র সহ গ্রেপ্তার করে।অভিযানকালে অপহরণকারী চক্রের মুল হোতা ইছা মিয়া ও তার সহযোগি আব্দুল লতিফ মিয়া পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়া অপহরণকারী চক্রের মুলহোতা ইছা মিয়াকে গাইবান্ধা জেলা ধাপেরহাট থেকে এবং তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকার সাভার হেমায়েতপুর থেকে আব্দুল লতিফকে ১৯ জানুয়ারী গ্রেফতার করে র‌্যাব-১৩ এর একটি আভিযানিক দল।গ্রেপ্তার কৃতরা সংঘবদ্ধ মুক্তিপণ আদায়কারী চক্রের সদস্য ও এই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে।
এই বিভাগের আরও খবর