লালমনিরহাট বার্তা
এমবাপ্পেকে রিয়ালের কাছে ছাড়লো না পিএসজি
বার্তা অনলাইন ডেস্কঃ | ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৫:৩৮ AM
এমবাপ্পেকে রিয়ালের কাছে ছাড়লো না পিএসজি
বিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসিকে দলে নিয়েও গ্রীষ্মকালীন ট্রান্সফার উইন্ডোর শেষ দিন পর্যন্ত আরো একটি বড় ঘটনা থেকে নিজেদের রক্ষা করতে সক্ষম হলো পিএসজি। দলের তরুণ তুর্কি কিলিয়ান এমবাপ্পের জন্য রিয়াল মাদ্রিদের দেয়া ২০০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাবও শেষ পর্যন্ত ফিরিয়ে দিয়েছে প্যারিসের জায়ান্টরা ফরাসি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্টে এ কথা বলা হয়েছে। যদিও আনুষ্ঠানিত ভাবে জানা গিয়েছিল এমবাপ্পেকে যেকোন মূল্যে দলে পেতে রিয়াল মাদ্রিদের কাছ থেকে দুই দফায় শেষ পর্যন্ত ১৮০ মিলিয়ন ইউরো প্রস্তাব পেয়েছিল পিএসজি।
কাতারি মালিকানাধীন পিএসজি স্পষ্টভাবে ইঙ্গিত দিয়েছে তারা কোনভাবেই এমবাপ্পেকে ছাড়বে না, কারন তাদের অর্থের প্রয়োজন নেই। এ বছরই পিএসজির সাথে এমবাপ্পের বর্তমান চুক্তি শেষ হয়ে যাচ্ছে। গত মৌসুমেও এই বিশ্বকাপ তারকাকে দলে ভেড়াতে জোড় চেষ্টা করেছিল লস ব্ল্যাঙ্কোসরা। গত সপ্তাহে পিএসজি কোচ মরিসিও পচেত্তিনো বলেছেন, ‘সে আমাদের দলের অন্যতম সেরা ও বর্তমান বিশ্বের অন্যতম গুরুত্বপূর্ন একজন খেলোয়াড়। তাকে দলে পাওয়া মানে আমাদের জন্য অনেক বড় উপহার।’
করোনা মহামারির মধ্যে এত বড় অর্থের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়াটা পিএসজির জন্য অত্যন্ত সাহসী একটি সিদ্ধান্ত ছিল। ২০১৯/২০ মৌসুমে ক্লাবটির প্রায় ১২৪.৯ মিলিয়ন ইউরো আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। পরের মৌসুমে তার পরিমান আরো বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
২২ বছর বয়সী এই তারকার জন্য প্রথমে ১৬০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দিয়েছিল রিয়াল। তবে ফরাসি গণমাধ্যমে এক সাক্ষাৎকারে পিএসজির স্পোর্টিং ডিরেক্টর লিওনার্দো বলেছিলেন এমবাপ্পের জন্য রিয়ালের করা প্রস্তাব পিএসজির জন্য অসম্মানজনক। তারা এমবাপ্পের জন্য যে অর্থের প্রস্তাব দিয়েছে সেটা পিএসজির প্রত্যাশার থেকে অনেক কম বলেও উল্লেখ করেন লিওনার্দো।
লিওনার্দো এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার সঙ্গে সঙ্গেই রিয়াল মাদ্রিদ দ্বিতীয়বারের মতো প্রস্তাব করে। এবার ১৭০ মিলিয়ন ইউরো এবং সঙ্গে আরও ১০ মিলিয়ন বোনাস প্রস্তাব করা হয় এমবাপ্পের জন্য। তবে এই প্রস্তাবেও সাড়া দেয়নি ফ্রেঞ্চ ক্লাবটি।
এমবাপ্পেকে এ মৌসুমে না ছাড়ায় আগামী জানুয়ারিতেই তিনি ফ্রি-এজেন্টে পরিণত হবেন। এ কারনে রিয়ালের সাথে আগেভাগেই প্রাক-চুক্তি সম্পন্ন করার সুযোগ তার সামনে থাকবে। তখন পিএসজির কাছে আর যেকোন মূল্য ধারণ করার ক্ষমতা থাকবে না। এর আগে অবশ্য ২০১৭ সালে রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরো ব্যয় করে এমবাপ্পে ও নেইমারকে দলে ভিড়িয়ে কাতারি মালিক প্রমান করেছিলেন অর্থ কোন বিষয় নয়। একমাস আগে মেসিকে দলে ভেড়ানোর সময়ও তারা অর্থের বিষয়টি মাথায় আনেনি।
এমবাপ্পেকে শেষ পর্যন্ত দলে রেখে পিএসজি এখন স্বপ্নের আক্রমনভাগ নিয়ে মাঠে নামার পূর্ণ প্রস্তুতি গ্রহণ করবে। এই যাত্রায় প্রথমবারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা ঘরে তোলাই হবে মূল লক্ষ্য। ফরাসি জায়ান্টরা ইতোমধ্যেই এবারের দলবদলের শুরুতে চুক্তিবদ্ধ করেছে গিয়ানলুইগি ডোনারুমা, সার্জিও রামোস, জর্জিনিও উইজনালডাম ও আচরাফ হাকিমিকে। মঙ্গলবার ট্রান্সফার উইন্ডোর শেষ দিনে পর্তুগীজ লেফট-ব্যাক নুনো মেন্ডেসকে ধারে স্পোর্টিং লিসবন থেকে দলে ভিড়িয়েছে। বিপরীতে তাদের ইউরোপীয়ান প্রতিপক্ষ দলগুলো সেভাবে দলবদলের বাজারে নিজেদের সড়ব উপস্থিতির প্রমান দিতে পারেনি।
এই বিভাগের আরও খবর