লালমনিরহাট বার্তা
ফেসবুক লাইভে স্কুল শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনার মূল হোতার সহযোগী জয় আটক
স্টাফ রিপোর্টারঃ | ৮ জুন, ২০২২ ১:৩৫ PM
ফেসবুক লাইভে স্কুল শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনার মূল হোতার সহযোগী জয় আটক
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী মেহেদি হাসান লিখনকে মারধরের ঘটনার মূলহোতা সিফাতের অন্যতম সহযোগী জয়কে (২১) গ্রেপ্তার করেছে রংপুর র‌্যাব-১৩।

বুধবার (০৮ জুুন) দুপুরে হাতীবান্ধা থানা পুলিশ গ্রেপ্তারকৃত জয়কে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানে। এর আগে গত মঙ্গলবার বিকেলে নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার এক আত্মীয়ে বাড়ি থেকে তাকে আটক করে র‌্যাব। পরে মধ্য রাতে হাতীবান্ধা থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে রংপুর র‌্যাব-১৩।
এদিকে এর আগে গত শনিবার রাতে হাতীবান্ধা উপজেলার কেতকীবাড়ী এলাকা থেকে শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত উপজেলার কেতকীবাড়ী এলাকার সিফাতের বাবা হাসানুর রহমান হিরু (৪২) ও জয়ের বাবা দুলু মিয়া (৪০) কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

হাতীবান্ধা থানার অফিসার ইনচার্জ এরশাদুল আলম বলেন, কেতকীবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী লিখনকে মারধরের ঘটনায় জয়কে নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার এক আত্মীয় বাড়ি থেকে আটক করে র‌্যাব-১৩। পরে মধ্য রাতে হাতীবান্ধা থানায় সোপর্দ করে। এছাড়া তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। আর বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত বুধবার বিদ্যালয় চলাকালীন অভিযুক্তরা ক্লাস রুমে প্রবেশ করে কিছু শিক্ষার্থীকে মারধর করে। এ সময় প্রতিবাদ করলে তারা মেহেদি হাসান লিখনের উপর চড়াও হয়। এ নিয়ে ঘটনার পরের দিন গত বৃহস্পতিবার দুপুরে সকলের উপস্থিতিতে বিষয়টি নিয়ে আপোস মিমাংসা করা হয়। কিন্তু ওইদিন সন্ধ্যার আগে ফোন করে মেহেদি হাসান লিখনকে ডেকে এনে বেধড়ক মারধর করেন সিফাত ও জয়। সেই মারধরের ভিডিও করেন তাদের সহযোগী মাহŸুব। লিখনকে মারধর করে তারা চলে যায়। পরে খবর পেয়ে স্থানীয়রা লিখনকে উদ্ধার হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এদিকে এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে মারধরের শিকার লিখনের বাবা রাকিব হোসেন বাদী হয়ে হাতীবান্ধা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন । অভিযুক্তরা হলেন, উপজেলার কেতকীবাড়ী এলাকার হাসানুর রহমানত হিরুর ছেলে সিফাত (১৯), দুলু মিয়ার ছেলে জয় (২১) ও মাহবুব হোসেন (২০)।
এই বিভাগের আরও খবর