লালমনিরহাট বার্তা
লালমনিরহাটের নয়া জেলা কমান্ড্যান্ট মইনুল ইসলাম
স্টাফ রিপোর্টারঃ | ১৭ নভেম্বর, ২০২২ ৬:৪২ AM
লালমনিরহাটের নয়া জেলা কমান্ড্যান্ট মইনুল ইসলাম

গত ১লা নভেম্বর লালমনিরহাট জেলার আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী নতুন জেলা কমান্ড্যান্ট হিসেবে যোগদান করেছেন মইনুল ইসলাম (পিএএম)।

তিনি ৩০ তম বিসিএসের একজন চৌকস ও দক্ষ কর্মকর্তা। ইতিপূর্বে তিনি ২৯ তম বিসিএসের এর মাধ্যমে শিক্ষা ক্যাডারে কর্মরত ছিলেন। এই বাহিনীতে যোগদান করার পর থেকে তিনি খাগড়াছড়ি ২৯ আনসার ব্যাটালিয়ন এর অধিনায়ক; র‍্যাব-১৪ এবং র‍্যাব-১ এ ডেপুটেশনে অপস অফিসার, অ্যাডজুট্যান্ট এবং কোম্পানি কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি জেলা কমান্ড্যান্ট, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, টাঙ্গাইল এবং উপপরিচালক (ওয়েলফেয়ার) হিসাবে, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, সদর দপ্তর, খিলগাঁও, ঢাকায় কর্মরত ছিলেন। এছাড়াও তিনি আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর বিশেষ শাখা আনসার গার্ড ব্যাটালিয়নে উপপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। লালমনিরহাটের জেলা কমান্ড্যান্ট হিসেবে যোগদানের পূর্বে তিনি জাপান থেকে দুই বছর মেয়াদী অর্থনীতি বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত। তিনি এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের গর্বিত জনক। চাকুরীর শুরুতে ২০১৫ সালে খাগড়াছড়ি ২৯ আনসার ব্যাটালিয়নে কর্মরত অবস্থায় বিশেষ অভিযানে একটি অস্ত্রসহ বিপুল সংখ্যক সেগুন কাঠ উদ্ধারের জন্য সাহসিকতাপূর্ণ ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতিস্বরুপ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে “প্রেসিডেন্ট আনসার পদক” (সাহসিকতা) লাভ করেন। তিনি বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীতে অত্যন্ত সততা ও নিপুন দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি বলেন, সরকার কর্তৃক লালমনিরহাট জেলায় “জেলা কমান্ড্যান্ট” হিসেবে আমাকে পদায়ন করায় নিজেকে গর্বিত মনে করছি।

এছাড়াও তিনি আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহ্য ও চেতনাকে বুকে ধারণ করে আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে অন্যান্য বাহিনীর সাথে সমন্বয় পূর্বক সরকার কর্তৃক অর্পিত সকল দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনে আমরা লালমনিরহাট জেলার আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সকল কর্মকর্তা, কর্মচারী ও সদস্য/সদস্যা বদ্ধপরিকর।

এই বিভাগের আরও খবর