লালমনিরহাট বার্তা
‘আমি চাই না, আর কারও আমার মতো ক্যারিয়ার শুরু হোক’
বার্তা অনলাইন ডেস্কঃ | ৭ জানু, ২০২২ ১১:১৮ AM
‘আমি চাই না, আর কারও আমার মতো ক্যারিয়ার শুরু হোক’
এক ম্যাচ দিয়েই ক্রিকেট বিশ্বের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছেন পেসার এবাদত হোসেন। তার বন্দনায় মুখর সমর্থক থেকে শুরু ক্রিকেট কিংবদন্তীরাও। তবে বাংলাদেশি এই পেসারের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের শুরুটা অতটা সুখকর ছিল না। এমনকি মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের একাদশে তার অন্তর্ভুক্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন অনেকেই। সেই এবাদত এখন বাংলাদেশ ক্রিকেটের অন্যতম সেরা সাফল্যের নায়ক।

২০০৯ সালে অভিষেক হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ১১টি টেস্ট খেলেছেন এবাদত হোসেন। তার উইকেট সংখ্যা ১৮টি। যার মধ্যে ৭টি নিয়েছেন সর্বশেষ টেস্টে। অর্থাৎ প্রথম ১‌০ ম্যাচে তার উইকেট মাত্র ১১টি! এ কারণে তার সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন উঠে এবং এটাই স্বাভাবিক। তবে ক্রিকেট পাড়ায় প্রচলিত আছে, পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের পছন্দের কারণেই একাদশে নিয়মিত সুযোগ পান এই পেসার।
তাইতো ইএসপিএনক্রিকইনফোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ প্রশ্নটা চলে আসে। তখন এবাদত হোসেন বলেন, ‘আমি চাই না, আর কার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার আমার মতো শুরু হোক। আমার প্রচুর কষ্ট করতে হয়েছে। আমি ওটিসকে (পেস বোলিং কোচ) বলতাম কোচ, একটি টেস্ট উইকেটও সহজে আসছে না। আমাকে প্রতিটি উইকেটের জন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছে। মাঝেমধ্যে ১৭, ২২ কিংবা ৩৩ ওভার বল করার পর একটি উইকেট পেতাম। এমনও টেস্ট গেছে যেখানে আমি মাত্র একটি উইকেট পেয়েছি।’

‘জবাবে সে (ওটিস গিবসন) হাসি দিয়ে বলতো, টেস্ট ক্রিকেটে স্বাগতম। তুমি একজন বাংলাদেশি পেস বোলার। কন্ডিশন তোমার পক্ষে নেই। বছরে তুমি কয়টা টেস্ট খেলো? সুতরাং, তোমার অধিকাংশ সুযোগগুলো কাজে লাগাও।’(সুত্র: ইত্তেফাক)
এই বিভাগের আরও খবর