লালমনিরহাট বার্তা
দহগ্রামে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ নির্মাণে বিএসএফের বাধা : পতাকা বৈঠক
আজিনুর রহমান আজিম, পাটগ্রাম : May 25, 2021, 6:11:46 PM সময়ে

দহগ্রামে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ নির্মাণে বিএসএফের বাধা : পতাকা বৈঠক

মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে দেশের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ নির্মাণের উদ্দ্যেগ নেয় সরকার। সে অনুযায়ী লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার আলোচীত দহগ্রাম ইউনিয়নের তিনবিঘা করিডোরের পাশে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ নির্মাণের কার্যক্রম শুরু করা হয়। কিন্তু ওই স্থানে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ নির্মাণের কাজে বাধ সাধে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। এ কারণে বন্ধ রয়েছে নির্মাণ কাজ। এ ঘটনায় মঙলবার (২৫ মে) দুপুরে তিনবিঘা করিডোর সীমান্তে বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।  
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) জানায়, দেশের বিভিন্ন স্থানের মত লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা ইউনিয়ন বাজার, পাটগ্রাম পৌরসভার জেলা পরিষদ ডাকবাংলো ও দহগ্রাম ইউনিয়নের তিনবিঘা করিডোরে পাশে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ নির্মাণের জায়গা নির্ধারণ করা হয়। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণ প্রকল্পের আওতায় এসব স্মৃতিসৌধ নির্মাণ বাস্তবায়ণ করছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)। ২০২০- ২১ অর্থবছরে ৩৩ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা ব্যয়ে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ নির্মাণে গত রোববার নির্ধারিত স্থানের পাশে ইট, বালু এনে রাখা হয়। ওইদিনই ভারতীয় ৪৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের তিনবিঘা ও ভিম ক্যাম্প কোম্পানির কমান্ডারগণ বাংলাদেশি ৫১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পানবাড়ি কোম্পানি কমান্ডারকে কাজ বন্ধ রাখার আহবান করেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছে সংশ্লিষ্ট এলাকায় দায়িত্বরত বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। 
এ ঘটনায় মঙলবার (২৫ মে) দুপুরে সীমান্তের ডিএমপি ৩ নম্বর মেইন পিলার ও ৩১ নম্বর সাব পিলারের নিকট তিনবিঘা করিডোর অংশে বিজিবি- বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় ১০ মিনিট স্থায়ী বৈঠকে ভারতীয় পক্ষের নের্তৃত্ব দেন তিনবিঘা বিএসএফ কোম্পানী কমান্ডার মদন পাল। বাংলাদেশের পক্ষে নের্তৃত্ব দেন বিজিবির পানবাড়ি কোম্পানি কমান্ডার নজরুল ইসলাম। 
বিজিবির পানবাড়ি কোম্পানি কমান্ডার নজরুল ইসলাম জানান, স্মৃতিসৌধ নির্মাণের জন্য বাছাইকৃত জায়গাটি ভারতীয় তিনবিঘা করিডোর সীমান্তের ১৫০ গজের মধ্যে হওয়ায় বিএসএফ নির্মাণ কাজে বাধা প্রদান করে। নির্ধারিত স্থানের পাশে রাখা ইট, বালু সরিয়ে নিতে বলে। উভয় বাহিনীর উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। 
এ ব্যাপারে বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)'র রংপুর, ৫১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল ইসাহাকের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে কথা বলা সম্ভব হয়নি।