লালমনিরহাট বার্তা
পুলিশ পরিদর্শকের স্ত্রীর বিরুদ্ধে গৃহকর্মী শিশুকে নির্যাতনের অভিযোগ!
স্টাফ রিপোর্টারঃ | ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ৪:৪৪ AM
পুলিশ পরিদর্শকের স্ত্রীর বিরুদ্ধে গৃহকর্মী শিশুকে নির্যাতনের অভিযোগ!
হাসিনা খাতুন নামের (৭) বছরের এক গৃহকর্মী শিশুকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে এক পুলিশ পরিদর্শকের স্ত্রীর বিরুদ্ধে। পুলিশ পরিদর্শক আজাহার আলী টাঙ্গাইল এ্যাকাডেমিতে কর্মরত রয়েছেন বলে জানাগেছে।
বর্তমানে নির্যাতিত শিশুটি লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
নির্যাতনের স্বীকার গৃহকর্মী হাসিনা খাতুন লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার গোড়ল ইউনিয়নের শিবরাম বলায়েরহাট এলাকার হতদরিদ্র হাসানন আলীর মেয়ে।

শিশুটির পরিবার জানায়, এক বছর আগে আদিতমারী উপজেলার তালুক দুলালী গ্রামের বাসিন্দা পুলিশ পরিদর্শক আজাহার আলী সুমন তার ঢাকার বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে হাসিনাকে নিয়ে যান।
তাকে নেওয়ার পর থেকে গত এক বছরে পরিবারের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করতে দেওয়া হয়নি। বরং কারণে-অকারণে শিশুটির ওপর শারীরিকভাবে নির্যাতন চালানো হতো।
সম্প্রতি অপরিচিত একজন ব্যক্তির মাধ্যমে অসুস্থ শিশু গৃহকর্মী হাসিনাকে তার বাড়িতে পাঠান ওই গৃহকর্তা আজহার আলী। বাড়ি পৌঁছে শিশুটি তার ওপর চালানো নির্যাতনের লোমহর্ষক বর্ণনা দেয় পরিবারের কাছে।
তার সারা শরীরের নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে। পরিবারের লোকজন অসুস্থ শিশুটিকে রাতেই লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানায় শিশুটির পরিবার।
লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা. গোলাম মোর্শেদ দোলন জানান, শিশু হাসিনার শরীরে পুরাতন ও নতুন আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে সে আশঙ্কামুক্ত রয়েছে।
মেয়েটির নানি আমেনা বেগম জানান, এই ঘটনায় অভিযোগ করতে থানায় গেলে পুলিশ অভিযোগ নেয়নি। তারা উল্টো ঘটনাস্থল ঢাকায় মামলা করতে বলেন।আদিতমারী থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলের থানায় মামলা দায়ের করতে হবে। আইনে এখানে মামলা নেয়ার সুযোগ নেই।
অভিযোগের বিষয়ে পুলিশ পরিদর্শক আজাহার আলী সুমন সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ অস্বীকার করেন বলেন, ‘মেয়েটির শরীরে যে দাগগুলো আছে সেগুলো সাধারণ ঘায়ের। আমার স্ত্রী তাকে কোনো নির্যাতন করেনি বলেও দাবী করেন।
এই বিভাগের আরও খবর