লালমনিরহাট বার্তা
লালমনিরহাটে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় সঠিক সময় প্রশ্নপত্র না পেয়ে পরীক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
স্টাফ রিপোর্টারঃ | ২৩ এপ্রিল, ২০২২ ৪:৫৩ AM
লালমনিরহাটে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় সঠিক সময় প্রশ্নপত্র  না পেয়ে পরীক্ষার্থীদের  বিক্ষোভ
লালমনিরহাটে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ লিখিত পরীক্ষায় মেঘনা সেটের প্রশ্নপত্র সঠিক সময় না পেয়ে হল ছেড়ে বিক্ষোভ করেছেন পরীক্ষার্থীরা। শুক্রবার (২২ এপ্রিল) পৌরসভার আদর্শ ডিগ্রি কলেজ, লালমনিরহাট সরকারি কলেজ ও সাপ্টিবাড়ি ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। পরীক্ষা কেন্দ্রেগুলোতে বিশৃঙ্খলা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।
তবে জেলা প্রশাসক আবু জাফরের নির্দশনায় পরীক্ষা কেন্দ্র প্রধানরা দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত মেঘনা সেটের পরীক্ষার্থীদের পুনরায় পরীক্ষা গ্রহণ করেন। কিন্তু পরীক্ষার নির্ধারিত সময় পার হয়ে যাওয়ায় মেঘনা সেটের অনেক পরীক্ষার্থী কেন্দ্র ছেড়ে চলে যান।
জানা যায়, এবার লালমনিরহাট জেলায় প্রায় ১৫ হাজার ৬০০ পরীক্ষার্থী প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেন। এই নিয়োগ পরীক্ষায় ‘পদ্মা’, ‘মেঘনা’, ‘যমুনা’ ও ‘সুরমা’— সেটে পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। কিন্ত পদ্মা, যমুনা ও সুরমা সেটের পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারলেও ওই ৩ কেন্দ্রে মেঘনা সেটের প্রশ্নপত্র নির্ধারিত সময়ে আসেনি। এতে এ সেটের পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারেননি। তবে পরীক্ষা শেষ হওয়ার প্রায় দেড় ঘণ্টা পর কেন্দ্রগুলোয় মেঘনা সেটের প্রশ্নপত্র আসে। মেঘনা সেটের পরীক্ষার্থীদের মধ্যে কিছুসংখ্যক পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিলেও অধিকাংশ পরীক্ষার্থী বিক্ষোভ প্রদর্শন করে কেন্দ্র ত্যাগ করে চলে যান।
লতিফুর ও নাদিম মিয়া নামে দুই পরীক্ষার্থী বলেন, দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অনেক আনন্দ নিয়ে পরীক্ষা দিতে এসেছিলাম। কিন্তু বেলা ১১টায় পরীক্ষা শুরু হওয়ার পর জানতে পারি মেঘনা সেটের কোনো প্রশ্নপত্র কেন্দ্রে আসেনি। তাই কেন্দ্র প্রধান মেঘনা সেটের পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেন। পরে আমরা কেন্দ্রে বিক্ষোভ করি। বিক্ষোভ প্রদর্শনের সময় কেন্দ্রে যাতে কোনো বিশৃঙ্খলা বা পরীক্ষায় ব্যাঘাত সৃষ্টি না হয়, সে জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।
লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, কারিগরি ত্রুটির কারণে মেঘনা সেটের প্রশ্নপত্র না আসায় মেঘনা সেটের পরীক্ষার্থীরা সঠিক সময়ে পরীক্ষা দিতে পারেনি। তবে নির্ধারিত সময়ের কিছু পরে মেঘনা সেটের পরীক্ষার্থীদের আবার পরীক্ষা নেয়া হয়েছে।
এই বিভাগের আরও খবর