ব্লাড প্রেসার কত থাকা উচিত?
বার্তা ডেস্ক: হাই ব্লাড প্রেসার বা উচ্চ রক্তচাপ ষ্ট্রোক ও হৃদরোগের অন্যতম একটি প্রধান কারণ। তবে অতি সম্প্রতি উচ্চ রক্তচাপ নিয়ে একটি লার্জ স্কেল গবেষণায় বিশেষজ্ঞগণ দেখেছেন, বয়স পঞ্চাশ পার হলে ব্লাড প্রেশার যদি কম থাকে তাহলে হৃদরোগ এবং হৃদরোগজনিত মৃত্যু উল্লেখযোগ্য মাত্রায় হ্রাস করা সম্ভব। যুক্তরাষ্ট্রের অরল্যান্ডোতে অনুষ্টিত আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের সম্মেলনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।
এ ব্যাপারে ষ্টাডি অথার টিউলেন ইউনিভার্সিটির বিশেষজ্ঞ ড. পল ওয়েলটন উল্লেখ করেছেন, উচ্চ রক্তচাপ কম থাকলে ক্ষতির চেয়ে উপকারিতা অনেক বেশি। গবেষণায় উল্লেখ করা হয় প্রতি তিনজন প্রাপ্ত বয়স্ক আমেরিকানের মধ্যে অন্তত একজন উচ্চ রক্তচাপের রোগী। এদের ব্লাড প্রেশার ১৪০/৯০ মিলিমিটার অব মার্কারি অথবা এর চেয়ে বেশি। আর নতুন গবেষণার ফলাফল অনুযায়ী ৫০ বছরের লোকদের ব্লাড প্রেশার থাকা উচিত ১২০/৮০ মিলিমিটার অব মার্কারি। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে পূর্বে পঞ্চাশোর্ধ্বদের সিস্টোলিক ব্লাড প্রেশার ১৪০ ধরা হতো। এখন বলা  হয়ে থাকে সিস্ট্রোলিক ব্লাড প্রেসার ১২০ থাকা ভালো।
বিশেষজ্ঞগণ আরও বলছেন, হাইব্লাড প্রেশার থেকে হৃদরোগ, স্ট্রোক, কিডনি ফেইলিওর সহ নানা জটিলতা হতে পারে। তাই ব্লাড প্রেশার যত নিয়ন্ত্রণে থাকবে ততই সুস্বাস্থ্যের জন্য ভালো। আর পঞ্চাশোর্ধ্ব পুরুষ-মহিলাদের উচ্চ রক্তচাপ ১২০/৮০ থাকা মানেই হৃদরোগ, স্ট্রোক ও কিডনি অকেজো হওয়ার ঝুঁকি কম।
 
লেখক: চুলপড়া, এলার্জি, চর্ম ও যৌন রোগ বিশেষজ্ঞ
স্বাস্থ্য বার্তা- এর অন্যান্য খবর