আদিতমারীতে অবৈধভাবে মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা
স্টাফ রিপোর্টার: লালমনিরহাটের আদিতমারী অবৈধভাবে মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করায় মেশিন মালিক আব্দুল খালেক নামের  এক জনের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
আব্দুল খালেক আদিতমারী উপজেলার পলাশী ইউনিয়নের মহিষাশহর গ্রামের মন্তাজ উদ্দিনের ছেলে
শুক্রবার (১৪ জুলাই) বিকালে উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের কুটিরপাড় নামক স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন।
জানাগেছে, প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে কতিপয় অসাধু মেশিন মালিক তিস্তা নদীতে অবৈধ মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে আসছেন। তবে অভিযোগ রয়েছে এসব মেশিন মালিকদের সাথে মহিষখোচা ইউনিয়ন তহশিলদারের যোগসাজশ রয়েছে। প্রশাসনের লোক ঘটনাস্থলে আসার আগেই তিনি মেশিন মালিকদের তথ্য পাচার করে থাকেন। ফলে বরাবরই ধরাছোয়ার বাহিরে থেকে যান এসব অবৈধযানের মালিকগণ।
কিন্তু শুক্রবার (১৪ জুলাই) ঘটেছে এক ব্যতিক্রম ঘটনা। আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন বিকালে মহিষখোচা ইউনিয়নের কুটিরপাড় নামক স্থানে আকস্মিকভাবে অভিযানে আসেন। এসময় তিনি ২টি মেশিন আগুণ ধরিয়ে দেন। আর এক মেশিন মালিক আব্দুল খালেককে  আটক করে থানায় সোপর্দ করেন।
 পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে অবৈধভাবে মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করায় তার ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।
আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অবৈধ মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করার সাথে যারাই জড়িত থাক না কেন,  এধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
জাতীয় বার্তা- এর অন্যান্য খবর