রংপুরে ব্যবসায়ীকে অপহরণ ও মুক্তিপন দাবী ॥ আটক-৫
রংপুর অফিস: রংপুরে এক অটো ব্যবসায়ীকে অপহরণ ও দুই লাখ টাকা (চাঁদা) মুক্তিপন দাবীর ঘটনায় ৫জন অপহরণকারীকে আটক করেছে রংপুর কোতয়ালী থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, মোঃ বিপ্লব মহন্ত ওরফে বিল্লা, মোঃ জাহিদ হাসান (৩৪),  মোঃ হৃদয় বাবু ওরফে হাসান (১৯), সুরুজ ইসলাম (২৪) ও আল-আমিন (১৯)কে গ্রেফতার করে। এ সময় আটককৃতদের কাছ থেকে লাল রংয়ের হিরো হান্ক ১ টি মোটর সাইকেল ও ২ টি লাল রংয়ের অটো এবং নগদ ২৩৬০ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে রংপুর কোতয়ালী থানা আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন আরপিএমপি’র উপ-পুলিশ কমিশনার ইবনে মিনান।
তিনি জানান, শফিকুল ইসলাম (৩৫) একজন সাধারণ ব্যবসায়ী। গত ১৬ই জুলাই লালমনিরহাট জেলার তিস্তা ব্রীজের উপর থেকে একটি পুরাতন চার্জার অটোসহ তাকে অপহরণ করা হয়। এ অপহরণটি ছিল সুকৌশলে এবং পরিকল্পিতভাবে।
তিনি জানান, একটি পুরাতন চার্জার অটো কিনার জন্য কয়েক দিন ধরে মজনু মিয়া (২৮) নামের এক ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করে আসছিল। মজনু তাকে রংপুরে একটি পুরাতন অটো চার্জার বিক্রির কথা জানালে, মোঃ শফিকুল তার কথা মত ১৬ জুলাই অনুমানিক সকাল সাড়ে ৯টার নগরীর পূর্ব খাসবাগ এলাকায় আসেন এবং সেখানে একটি অটো গ্যারেজে নিয়ে গিয়ে তাহাকে ০২ টি অটো দেখানো হয়।
উক্ত অটো ০২টি তার পছন্দ না হইলে মজনু অন্য একটি লাল রংয়ের অটো দেখায়। লাল রংয়ের অটোটি পছন্দ করেন এবং অজ্ঞাতনামা এক অটো ড্রাইভারসহ তাহার অটোটির মূল্য ৮৫ হাজার টাকা দাম নির্ধারণ করেন এবং নগদ ৭৫ হাজার টাকা প্রদান করেন। অবশিষ্ট বকেয়া ১০হাজার টাকা প্রদানকালে অটোর কাগজপত্রাদিসহ লিখিতভাবে তাকে বুঝাইয়া দেয়া হবে বলে মৌখিক আলোচনা ও নগদ অর্থ লেনদেন সম্পন্ন হয়। পরবর্তীতে সে উক্ত অটোর অজ্ঞাতনামা ড্রাইভারের কাছ থেকে অটোর চাবি বুঝে নিয়ে নিজে চালিয়ে যাওয়ার পথে লালমনিরহাট জেলার তিস্তা ব্রীজের উপর পৌছা মাত্রই মোঃ বিপ্লব মহন্ত ওরফে বিল্লা ও মোঃ জাহিদ হাসান (৩৪) তাহার অটো সামনে মোটরসাইকেল থামিয়ে তার গতিরোধ করেন এবং হত্যার হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে অপহরণ করে রংপুর মহানগরীর পরশুরাম থানার কুকরুল এলাকার জনৈক মোঃ আসাদ হোসেন (৫৫) এর ভাড়াটিয়া মোঃ জাহিদ হাসান এর ভাড়া বাড়ীতে নিয়ে আটক করে রাখেন।
এ সময় তা কাছ থেকে মুক্তিপন হিসেবে নগদ ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন। টাকা না দিলে তাকে মারিয়া ফেলা হবে বলেও হুমকি প্রদান করেন। একপর্যায়ে তাকে মারপিট করিয়া চাঁদা বাবদ তার প্যান্টের পকেটে থাকা নগদ ২৩৬০ টাকা জোর পূর্বক বাহির করে নেন।
তিনি জানান, এরই একপর্যায়ে শফিকুল ইসলাম অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে তার জ্যাঠাত ভাই জাহাঙ্গীর আলম (৪৫) ও মোঃ খবিরুল ইসলাম (৪৮)কে বিষয়টি অবগত করলে তারা রংপুর কোতয়ালী থানায় পুলিশের সহায়তা চেয়ে অভিযোগ জানালে রংপুর কোতয়ালী থানা পুলিশ গত বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর পায়রা চত্ত্বর ও কুকরুল এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত শফিকুল ইসলামকে উদ্ধার করেন এবং অপহরণকারীদের আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে লাল রংয়ের হিরো হান্ক ১ টি মোটর সাইকেল ও ২ টি লাল রংয়ের অটো এবং নগদ ২৩৬০ টাকা উদ্ধার করা হয়।
এ ঘটনায় ধারা- ৩৬৫/৩৮৫/৩৮৭/৩৭৯/৩৪/৪১১পেনাল কোডে রংপুর কোতয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয় এবং আটককৃতদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) মোঃ শহিদুল্লাহ কাওসার পিপিএম, রংপুর কোতয়ালী থানার ওসি আব্দুর রশিদসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।
বিভাগীয় বার্তা- এর অন্যান্য খবর