সীমান্ত হত্যা ও চোরাচালানী প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে বিজিবি
স্টাফ রিপোর্টার: সামনে কুরবানীর ঈদে গরু, মাদকসহ বিভিন্ন চোরাচালান ও সীমান্ত হত্যা প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে বর্ডারগার্ড বাংলাদেশে (বিজিবি) বলে জানিয়েছেন রংপুর ৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক পিএসসি।
শহীদ আফজাল মিলনায়তনে পাটগ্রাম উপজেলা পরিষদের আয়োজিত সম্প্রতি মাসিক আইন- শৃঙ্খলা বিষয়ক সমন্বয়সভায় তিনি এসব কথা বলেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় লালমনিহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় ৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক পিএসসি, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রুহুল আমীন বাবুল, পৌর মেয়র শমসের আলী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন লিপু, থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোজাম্মেল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পূর্ণ চন্দ্র রায় উপস্থিত ছিলেন। 
আইন- শৃঙ্খলা বিষয়ক সমন্বয়সভায় তিস্তা ব্যাটালিয়ন-২ এর ৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক পিএসসি আরও বলেন, সীমান্ত হত্যা কারো কাম্য নয়। সীমান্তে হত্যা একটি পরিবারের চরম কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। অবৈধভাবে গরু পারাপারে সীমান্ত হত্যাকান্ড ঘটার সম্ভাবনা বেশি। সীমান্তে হত্যা বন্ধে বিজিবি বদ্ধ পরিকর এ লক্ষে ভারতীয় বিএসএফের সাথে প্রতিনিয়ত ব্যাটালিয়ন কমান্ডার, কোম্পানী কমান্ডারগণ সৌজন্য সাক্ষাত ও টেলিকথোপকথন করা হয়। তিনদিকে ভারতীয় সীমান্ত বেষ্টিত হওয়ায় আসন্ন ঈদ- উল আযহা ও বর্ষায় চোরাকারবারিসহ অপরাধ দমনে বিজিবি ক্যাম্প গুলোতে জনবল ও নজরদারি বৃদ্ধি, বিএসএফ, স্থানীয় প্রশাসন এবং এলাকার জনসাধারণের সাথে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। ঈদে দেশ ও খামারিদের ক্ষতি মেনে নেয়া হবে না। এজন্য ভারত থেকে গরু আনা বন্ধে বিজিবি কঠোর অবস্থানে রয়েছে। তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনসহ সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।
জাতীয় বার্তা- এর অন্যান্য খবর