রংপুরে নতুন মএার মাদক আবিস্কার করেছে র‌্যাব।আটক৩ ব্যবসায়ী
রংপুর অফিস: রংপুর মহা নগড়ীতে নতুন মএার মাদক আবিস্কার করেছে র‌্যাব।নগড়ীর পায়রা চত্ত্বর এলাকার আনোয়ারা মেডিসিন মার্কেটে অভিযান চালিয়ে প্রায় ১৩৭৮ পিস অবৈধ মাদকদ্রব্য ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটউদ্ধার করেছে র‌্যাব। এসময় ৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে।
সন্ধায় এক প্রেস বার্তায় র‌্যাব-১৩, রংপুর এর সিপিএসসি ক্যাম্পের আভিযানিক দল গত কাল মঙ্গল বার রাতে রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রংপুর মহানগরীর কোতয়ালী থানাধীন ২৩ নং  ওয়ার্ডের পায়রা চত্বর মোড়ে আনোয়ারা মেডিসিন মার্কেট এর ৩য় তলায় আয়শা ফার্মেসী নামের ঔষধের দোকানে অভিযান পরিচালনা করে মাদকদ্রব্য টাপেন্টা ট্যাবলেট (টেপেন্টাডল গ্রুপ) ৮১৮ টি, সিনটা (টেপেন্টাডল গ্রুপ) ট্যাবলেট ৫৬০টি, ০৩ (তিন)টি মোবাইল ফোন, ০৫ (পাঁচ)টি সীমকার্ড, ০১ (এক)টি মেমোরী কার্ড এবং মাদক বিক্রয়লব্ধ নগদ টাকা ১১,৩৫০ টাকা সহ মাদক ব্যবসায়ী মোঃ আব্দুর রহিম (৪২), পিতা- মোঃ আনসার আলী, সাং- ডালিয়া চেয়ারম্যানপাড়া, থানা- ডিমলা, জেলা- নীলফামারী, মোঃ আসাদ মিয়া (২৬), পিতা- মোঃ আজিজার রহমান, সাং-দেওডোবা পাইকারপাড়া, থানা-কোতয়ালী,মোঃ ইজাজুল ইসলাম ইজাজ (২৫), পিতা- মোঃ আইয়ুব আলী, সাং- চব্বিশ হাজারী, থানা- পরশুরাম, উভয়ই সিটি কর্পোরেশন, রংপুর’কে গ্রেফতার করে। উলে¬খ্য, ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট পূর্বে ব্যাথানাশক ঔষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হলেও গত ০৮ জুলাই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় এটিকে ‘খ’ শ্রেণীর মাদকদ্রব্য হিসেবে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের তফসিলে যুক্ত করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে সকল ঔষুধ কোম্পানীর ট্যাপেন্টাডল সিরিজের ঔষুধ বাজার থেকে প্রত্যাহার করার আদেশ হলেও কিছু অসাধু ব্যবসায়ী মাদকসেবীদের নিকট চড়া দামে বিক্রয় করছে। ইয়াবা ট্যাবলেটের বিকল্প হিসেবে এবং ইয়াবার তুলনায় কিছুটা সাশ্রয়ী হওয়ায় দ্রুতই এই ট্যাবলেট মাদকসেবীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, আসামীগণ পরস্পর যোগসাজসে আনোয়ারা মেডিসিন মার্কেটে ঔষধ বিক্রির আড়ালে মাদকদ্রব্য ট্যাপেন্টাডল অধিক লাভের আশায় ক্রয়-বিক্রয় করতো। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীগনের বিরুদ্ধে সংশি¬ষ্ট থানায় প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।



 
বিভাগীয় বার্তা- এর অন্যান্য খবর