লালমনিরহাটে সরকারি ওষুধসহ টাউন ফার্মেসীর মালিক গ্রেফতার
স্টাফ রিপোর্টার: আজ বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) বিকালে সরকারি ওষুধ সহ  শহরের বিডিআরগেট পুরানবাজার এলাকার টাউন ফার্মেসীর বর্তমান মালিক শরাফত হোসেন (৪০) নামের আরো এক ওষধ ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে সদর থানা পুলিশ।
এর আগে গত মঙ্গলবার (২৩ জুন) ড্রাইভারপাড়া এলাকায় রেলওেয়ের একটি ভাড়া বাসা থেকে ২৬ প্রকারের বিপুল পরিমাণ সরকারি ওষুধ ও ১৭৫টি ডিজিটাল বডি ইলেক্ট্রনিক স্কেল মেশিন উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে জেলার ৩ টি সরকারি হাসপাতালের তিনজন স্টোর কিপার সহ ৬ জনকে আসামি করে মামলা রুজু করে।
ওই মামলায় কারাগারে আটক আছেন শহরের রেলওয়ে ড্রাইভারপাড়া কলোনির বাসিন্দা আব্দুর রাজ্জাক ওরফে রেজা মিয়া (৪৫) ও তার স্ত্রী নিলুফা ইয়াসমিন (৩৮)। আব্দুর রাজ্জাক ওরফে রেজা মিয়া গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধুমাইটারী এলাকার মমতাজ উদ্দিনের ছেলে ও নিলুফা ইয়াসমিন লালমনিরহাট সদর উপজেলার খোচাবাড়ী এলাকার হাবিবুর রহমানের মেয়ে ।
মামলার অপর আসামীরা হলেন ওষধ ব্যবসায়ি হামিদুর রহমান দুদুু, সিভিল সার্জন অফিসের ষ্টোর কিপার মোয়াজ্জেম হোসেন ওরফে মুরাদ, কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালের ষ্টোর কিপার জাকারিয়া ও আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালের ষ্টোর কিপার মাহবুব আলম।
লালমনিরহাট সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এরশাদুল আলম জানান, গত  মঙ্গলবার (২৩ জুন) আব্দুর রাজ্জাক ওরফে রাজা মিয়ার ভাড়া বাসা থেকে মোট ৬ লক্ষ ৩৯ হাজার ৪০৫ টাকার ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। এরমধ্যে ১৭৫ টি ডিজিটাল বডি ইলেকট্রনিক স্কেল মেশিনের মুল্য ধরা হয়েছে ২ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা। যার প্রতিটির দাম ১৫০০ টাকা করে। এছাড়া ২৫ প্রকার ওষুধের মুল্য ধরা হয়েছে ৩ লক্ষ ৭৭ হাজার ৪০৬ টাকা।
তিনি আরো বলেন, বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) বিকালে টাউন ফার্মেসীতে সদর থানার অফিসার ইন-চার্জ মাহফুজ আলমের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে ৬ প্রকার সরকারি ওষুধ সহ শরাফত হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে ।
লালমনিরহাট সদর থানার ওসি মাহফুজ আলম জানান, প্রথম গ্রেফতার ওষুধ ব্যবসায়ী আব্দুর রাজ্জাক ওরফে রেজা মিয়ার স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের সামনে ১৬৪ ধারায় রেকর্ড করা হয়েছে। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে লালমনিরহাট শহরের টাউন ফার্মেসীর মালিক শরাফত হোসেনকে সরকারি ওষুধসহ তার দোকান থাকায়  গ্রেফতার করা হয়েছে।
এক নজরে- এর অন্যান্য খবর