ফেন্সিডিলসহ বিজিবির হাতে গ্রাম পুলিশ আটক, প্রতিবাদে মানবন্ধন
স্টাফ রিপোর্টার: জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ ওমর ফারুক হোসেন (৩৫) ৯৭ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক দেখিয়ে হাতীবান্ধা থানায় আজ শনিবার (১৩ জুন) মাদক আইনে মামলা হয়েছে।
মামলার বিবরণ ও বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, গ্রাম পুলিশ ওমর ফারুক হোসেনকে শুক্রবার রাতে জেলার হাতীবান্ধার বনচুকি সীমান্তের নোম্যান্সে ল্যান্ডে ১৫ বিজিবির বনচুকি বিওপির টহলদল বস্তা ভর্তি ৯৭ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক করে। পরে তাঁকে হাতীবান্ধা থানায় সোপর্দ করে। আটক গ্রাম পুলিশকে ছাড়িয়ে নিতে সারারাত ধরে একটি প্রভাবশালী মহল নানা নাটক করে। এমন কী ফেন্সিডিল গুলো পুলিশের কাছে হস্তান্তর করবে বলে গ্রাম পুলিশ নিয়ে আসছিল বলে প্রচার চালায়। কিন্তু বনচুকি ক্যাম্পের বিজিবি’র দৃঢ়তায়  সফল হতে পারেনি প্রভাবশালী মহলটি। 
এদিকে আজ শনিবার দুপুরে উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের কাসিম বাজারে ফেন্সিডিলসহ আটক গ্রাম পুলিশ  মাদক ব্যবসায় জড়িত নয় দাবি করে ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহির উদ্দিন ও ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার জাহাঙ্গীর হোসেনের নেতৃত্বে ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বনচুকি ১৫ বিজিবি’র সূত্রে জানা গেছে, গ্রাম পুলিশ ওমর ফারুক হোসেন স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তির হতে মাদক ব্যবসাসহ নানা অপকর্মে জড়িত। তাঁকে নোম্যান্স ল্যান্ডে ফেন্সিডিলসহ আটক করা হয়েছে। হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)ওমর ফারুক জানান, ১৫ বিজিবি’র বনচুকি দায়ের করা মামলায় গ্রামপুলিশকে আটক দেখিয়ে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।
এক নজরে- এর অন্যান্য খবর