জাপা মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গার মেয়ের প্রাইভেট কারে অটোচালকসহ আহত ৩
রংপুর অফিস: রংপুর মহানগড়ীর গুঞ্জণ মোড় এলাকায় জাপা মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গার মেয়ে মালিহা তাসলিম জুঁইর প্রাইভেট কারের চাপায় এক অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলের আরোহীসহ  তিন জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে অটোচালকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। গত কাল রোববার (৭ জুন) রাত দশটার দিকে নগরীর গুঞ্জন মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। এ  ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে।আহতরা হলেন বৈরাগীপাড়ার নিবারমের পুত্র অটোচালক বিশু (৩৫), সাথমাথার ফজলে করিমের পুত্র লিমন (২১), ও কামাল কাছনার সাহাবুদ্দিনের পুত্র আলাউদ্দিন (৩৮)।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানায়, রোববার (৭ জুন)  রাত ১০টার দিকে  নেভি ব্লু কালারের একটি প্রাইভেট কার বেপরোয়া গতিতে চালিয়ে যাবার সময় নিয়ন্ত্রনণ হারিয়ে একটি অটোরিকশা ও একটি মোটরসাইকেলকে সজোরে ধাক্কা দিলে অটোরিকশা চালক ও মোটরসাইকেলের তিনজন আরোহী গুরুত্বর আহত হয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজন তাদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেলে পাঠায়। বিক্ষূব্ধ এলাকাবাসী প্রাইভেট কারটি ঘেরাও ও সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। এ সময় রাঙ্গা কন্যাকে অবরুদ্ধ করে উত্তেজিত এলাকাবাসী।  এতে কয়েকজন চালকসহ গাড়িটি উদ্ধারের চেষ্টা করলে ধাওয়া-পাল্টার দুই পক্ষের বাকবিতন্ডা লেগে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে প্রায় এক ঘন্টা চেষ্টার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
 এ বিষয়ে মেট্টোপলিটন কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক এরশাদ আলী বলেন, মশিউর রহমান রাঙ্গার মেয়েকে উদ্ধার করে বাসায় পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে  পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।
মেট্টোপলিটন কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা আব্দুর রশিদ জানান, আজ বিকেল পর্যন্ত কোন মামলা দায়ের হয়নি। কারটি আটক কওে থানায় আনা হয়েছে। মামলা দায়ের না হলেও পুলশ রঙ্গার কন্যার ড্রাইভিং লাইসেন্স সহ পুরো ব্যাপারটি খতিয়ে দেখবে|
বিভাগীয় বার্তা- এর অন্যান্য খবর