এক ব্যক্তির জন্য কোয়ারেন্টাইনে ৪০ হাজার মানুষ
বার্তা মনিটর: ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ পাঞ্জাবের ২০টি গ্রামের ৪০ হাজার বাসিন্দাকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাদের সবার দেহে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হয়েছে এই সন্দেহে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। সংক্রমণ আবার না কি মাত্র একজনের কাছ থেকে হয়েছে।
বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ৭০ বছর বয়সী বলদেব সিং সম্প্রতি করোনা ভাইরাসে মারা গেছেন। আর এই ঘটনা প্রকাশিত হয়েছে তার মৃত্যুর পর। এই ব্যক্তি একজন শিখ ধর্মপ্রচারক। সম্প্রতি তিনি ইতালি এবং জার্মানি সফর শেষে ভারত ফেরেন।
করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে কোয়ারেন্টাইনে থাকার যেসব উপদেশ রয়েছে তিনি তার কোনটাই মেনে চলেননি বলে বিবিসিকে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা।
প্রতিবেদনে বলা হয়, মৃত্যুর কিছুদিন আগে শিখদের একটি উৎসব উপলক্ষে এক জনসমাবেশে যোগ দিয়েছিলেন বলদেব সিং। ছয় দিনব্যাপী ঐ উৎসবে প্রতিদিন প্রায় ১০ হাজার মানুষ যোগ দিয়েছিলেন।
বলদেব সিংয়ের মৃত্যুর পর তার ১৯ জন আত্মীয়র শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে।
পাঞ্জাবের একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘এ পর্যন্ত আমরা ৫৫০ জনকে শনাক্ত করতে পেরেছি যারা সরাসরিভাবে তার সংস্পর্শে এসেছিলেন। এই সংখ্যা এখন বাড়ছে। ফলে তিনি যেখানে থাকতেন তার আশেপাশের গ্রামগুলো সিল করে দিয়েছি।’
এখন পর্যন্ত ভারতে মোট করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬৪০। এর মধ্যে ৩০ জন রোগী পাঞ্জাবের। তবে বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, ভারতে করোনা ভাইরাস রোগী আসল সংখ্যা অনেক বেশি হবে।
দেশটিতে এখন ২১ দিনব্যাপী লকডাউন চলছে।
ইত্তেফাক/জেডএইচ
বিদেশ বার্তা- এর অন্যান্য খবর