সম্প্রতি বন্যায় লালমনিরহাটে প্রায় ২’শ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি
স্টাফ রিপোর্টার: সম্প্রতি বন্যায় লালমনিরহাটের ৪উপজেলায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমান দাড়িয়েছে ১৪৯ কোটি ৮৬ লাখ ৭৩ হাজার ৭৪৫ টাকা। গতকাল বৃহস্পতিবার জেলা ত্রাণ কর্মকর্তা  আলী হায়দার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
জেলা ত্রাণ সুত্রে জানা গেছে, জেলার আদিতমারী, কালীগঞ্জ, হাতীবান্ধা ও লালমনিরহাট সদর উপজেলায় বন্যায় ঘর-বাড়ী, (কাঁচা-পাঁকা) খাতে ৭২ কোটি ২৪ লাখ, হাঁস-মুরগী ১১ হাজার ৫ শত, শস্য খাতে ১ কোটি ১৫ লাখ ৪৯ হাজার ৮ শত ৫০, মৎস্য খাতে ৩ কোটি ৪৫ লাখ ৪২ হাজার, ৯ শত ৮০, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ক্ষতি ১লাখ, সড়ক (কাঁচা-পাঁকা) ২৮ কোটি ৩০ লাখ, ব্রীজ ও কালভাট ৩০ লাখ, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ৪৯ লাখ ৫০ হাজার, উচ্চ বিদ্যালয় ১১ লাখ ৪০ হাজার , মাদ্রাসা ১ লাখ ৯০ হাজার, নলকুপ ২৫ হাজার ৬শত ৬৫, স্বাস্থ্যা সম্মত পায়খানা ৬লাখ ৩৭ হাজার ৫শত ও কমিউনিটি কিনিক খাতে ক্ষতির পরিমান ৪ লাখ টাকাসহ প্রায় ২শত কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ ক্ষতি জেলার ৫উপজেলার ৪৫টি ইউনিয়নের মধ্যে ২৭টি ইউনিয়নে হয়েছে বলে ত্রাণ শাখা জানায়। অপরদিকে বন্যার সময় শুধুমাত্র নদী ভাংগনে ৪শত ৭৫টি পরিবার ক্ষতি গ্রস্থ্য হয়েছে। এর মধ্যে সদরে উপজেলা ৫১, আদিতমারী ১৪১, কালীগঞ্জ ৭৬টি ও হাতীবান্ধায় ২০৭টি পরিবার নদী ভাংগনে ক্ষতি গ্রস্থ্য হয়েছে। এদের তালিকা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও ত্রাণ শাখা জানিয়েছে। তবে জেলা ত্রাণ শাখা থেকে বন্যা কবলিত পরিবারের জন্য জি.আর চাল ৬৪১ মে. টন, জি.আর ক্যাশ ১২ লাখ ৩৬ হাজার, ঢেউটিন ৮৪৪ বান্ডিল ও তার সাথে নগদ টাকা ২৫ লাখ ৩২ হাজার বিতরণ করা হয়েছে।






জাতীয় বার্তা- এর অন্যান্য খবর