পাটগ্রামে তদন্তের নামে জনসাধারণকে হয়রানির অভিযোগ শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে
আজিনুর রহমান আজিম, পাটগ্রাম: লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার ১ নং পানবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সম্প্রতি অনিয়ম করে চারজন অভিভাবক সদস্য নির্বাচন করা হয়। স্থানীয় অভিভাবকগণ ওই অনিয়মের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (টিও) এবং উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে অভিযোগ প্রদান করে ভোটের মাধ্যমে কমিটি গঠনের দাবি করেন। অভিভাবকদের লিখিত অভিযোগ অনুযায়ী ঘটনা তদন্তে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মেশকাত জাহানকে দায়িত্ব দেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল হোসেন।
ওই বিদ্যালয়ের ক্যাচমেন্ট এলাকার অভিভাবককে তদন্ত কাজে সহায়তার জন্য মাইকিং করে গতকাল ০৩ সেপ্টেম্বর ১১টায় উপস্থিত থাকতে বলা হয়। তদন্তের সময়ের দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও তদন্ত কাজে নিয়োজিত সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মেশকাত জাহানও প্রধান শিক্ষক মনোয়ার হোসেন মন্টু বিদ্যালয়ে উপস্থিত না হয়ে মোবাইল ফোনে তদন্ত কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করেন।
বিদ্যালয় এলাকার শতশত নারী-পুরুষ দীর্ঘসময় ধরে রোদে দাঁড়িয়ে থেকে তদন্ত কার্যক্রম বন্ধের কথা শুনে উপস্থিত অভিভাবকগণ উত্তেজিত হন। এক পর্যায়ে লোকজন পাটগ্রাম উপজেলা শিক্ষা অফিস ঘেরাও করতে উদ্যত হন। বেলা ১২ টায় প্রধান শিক্ষক মনোয়ার হোসেন মন্টু বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে অভিভাবকদের নিকট দুঃখ প্রকাশ করে তদন্ত কার্যক্রম অনিবার্য কারণবশতঃ স্থগিতের কথা বলেন।
বিদ্যালয়ের অভিভাবক লাইলী বেগম (৪৫) বলেন, ‘স্কুলটা ভালোই চলছিল। কিছুদিন থাকি অনিয়ম করি চলছে। খুব রোদ, দুই ঘন্টা থাকি অপেক্ষায় থাকিয়া এলা (এখন) শুনি কমিটির অনিয়মের তদন্ত নাকী করা হবে না। স্কুলটার পড়া- লেখার পরিবেশ নষ্ট করতে দেওয়া হবে না। হামার বাচ্চা কোটে পড়িবে।’
অভিভাবক রফিকুল ইসলাম (৫০) বলেন, ‘কৃষিকাজ রেখে আসছি। হঠাৎ করে তদন্ত কার্যক্রম বন্ধ করা হয়। আমরা গ্রামের শতশত লোকজন সঠিক তদন্ত চাই। কোনো অনিয়ম চাই না। ভোটের মাধ্যমে কমিটি গঠন করতে হবে।’
উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা ও পানবাড়ী ক্লাস্টারের মেশকাত জাহান বলেন, ‘উপজেলা শিক্ষা কমিটি কোনো সদস্য তদন্তে যাবেন না বলে সকালে জানতে পারি। উপজেলা চেয়ারম্যানও নেই। স্থানীয় এমপি স্যারের সাথে কথা বলে তদন্ত কার্যক্রম বন্ধ করা হয়।’
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন বলেন, ‘তদন্ত কার্যক্রম কেন স্থগিত করা হয়েছে তা জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’




শিক্ষা বার্তা- এর অন্যান্য খবর