তিস্তা নদী সুরক্ষা ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচির প্রতি সংহতি
স্টাফ রিপোর্টার: ২৬ অক্টোবর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) একাডেমিক ভবনে তিস্তা সংগঠনের আহবায়ক, সহকারী অধ্যাপক নুরুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় তিস্তা আন্দোলনের প্রতি সংহতি জানানো হয়।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিস্তা বাঁচাও নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি নজরুল ইসলাম হক্কানী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত থেকে বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে নদী খনন, নদ-নদী দখলমুক্ত এবং নদীর নাব্যতা ফিরিয়ে আনা ছাড়া অন্য কোন বিকল্প নাই। প্রধানমন্ত্রী গোটা দেশের নদী খননের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন। পরিকল্পনায় তিস্তাকে অগ্রাধিকার দিয়ে তিস্তাা নদী ব্যবস্থাপনায় মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন এ জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছি। আমরা চাই দ্রুত এর বাস্তবায়ন। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বেরোবির সহযোগি অধ্যাপক, স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য ড. তুহিন ওয়াদুদ, ছাত্র ইমরান নাজির। উল্লেখ্য, আগামী ১ নভেম্বর রবিবার সকাল ১১টায় তিস্তা নদীর ডান ও বাম তীরে ২শ’ ৩০ কিলোমিটার মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হবে।
এক নজরে- এর অন্যান্য খবর