তিস্তা ষ্টেশনে চলন্ত ট্রেনে উঠতে গিয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু
মাসুম মিয়া, তিস্তা থেকে: লালমনিরহাটের তিস্তা রেলওয়ে ষ্টেশনে ট্রেনে কাটা পড়ে ভরত (৬৫) নামের এক বৃদ্ধের মৃত্যু  হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কাউনিয়া থেকে লালমনিরহাট গামী কমিউটার ট্রেনটি তিস্তা ষ্টেশনে দাড়ালে বৃদ্ধ লোকটি ট্রেনের কাছে গিয়ে দাড়ায়। ট্রেনটি লালমনিরহাটের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করলে লোকটি শেষ বগিতে উঠার চেষ্টা করে। কিন্তু সে ব্যার্থ হয়ে বগির  নিচে পড়ে যায়। ট্রেনের ২ টি চাকা তার বুকের উপর দিয়ে গেলে সেখানেই তার মৃত্যু ঘটে।
কর্তব্যরত ষ্টেশন মাষ্টার আশাদুজ্জামান (৩০), জানায়,বিরল থেকে আসা লালমনিরহাট গামী ৬২ নং কমিউটার ট্রেনটি ২৪ অক্টোবর বিকাল ৩ টা ৩৭ মিনিটে তিস্তায় বিরতি পর আবার লালমনিরহাট ষ্টেশনের উদ্দেশ্যে ছাড়লে ট্রেনে কাঁটায় এক বৃদ্ধ ব্যাক্তির মৃত্য হয়। বিয়টি জিআরপি পুলিশকে অবহিত করা  হয়েছে।
নিহতের স্ত্রী মিনতি রানি ও তার বড় জামাতা পরিমল চন্দ্র জানায়, নিহত ব্যাক্তি রাজপুর ইউনিয়নের মধুরাম গ্রামের মৃত কেশব চন্দ্রের ছেলে ভরত চন্দ্র (৬৫)। নিহত ভরত চন্দ্র পেশায় একজন রিক্সা চালক তার ৪ মেয়ে কোন ছেলে নেই। ৪ মেয়েকে বিয়ে দিতে গিয়ে তার সব জমি-জমা বিক্রি করে। প্রায় এক বছর যাবত পাগলের মতো ঘুড়ে বেড়ায়, তার কোন কাজ-কর্ম করে নেই।
জিআরপি পুলিশের এসআই আব্দুল মতিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। লালমনিরহাট জেলা পরিষদ সদস্য  আবুল কাশেম, রাজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন এর উপস্থিতি নিহতের স্ত্রী ও বড় জামাতার কোন মামলা ছাড়া জিআরপি পুলিশ তাদের কাছে লাশ গ্রহন করে।
এক নজরে- এর অন্যান্য খবর