তিস্তার দু’তীরের ২৩০ কিলোমিটার মানববন্ধন কর্মসূচির প্রতি সংহতি জানিয়েছেন- ফজলে হোসেন বাদশা এমপি
বার্তা মনিটর: বাংলাদেশের ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক রাকসুর সাবেক ভিপি জননেতা ফজলে হোসেন বাদশা এমপি ১ নভেম্বর তিস্তা বাঁচাও, নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদের তিস্তা নদীর দুইপাড়ের ২ শত ৩০ কিলোমিটার মানববন্ধন কর্মসূচির প্রতি সংহতি জানিয়ে বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রতিক্রিয়ায় বায়ুমন্ডলে উষ্ণতা বাড়ছে। বরফ গলে সাগরে নামছে। সাগরের লোনা পানি বাংলাদেশের উপকুলীয় জেলাগুলোতে ঢুকে পড়ছে। বাড়ছে ঘূর্ণিঝড়, তাপমাত্রা, বন্যা। বন্যার সাথে বৃষ্টিপাতের পরিমানও বেড়েই চলছে। এবছর উপর্যুপরি ৫ দফা বন্যায় নদী অববাহিকার ৪০ লাখ মানুষ ৫ মাস ধরে পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করেছেন। ২০ লক্ষ মানুষ হয়েছেন উদ্বাস্ত। রংপুর শহরের মানুষ, উওর-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ এবার জলাবদ্ধতায় জলবন্দী হয়ে পড়েছিলেন। এই পরিস্থিতি নিরসনে নদীর সুরক্ষা,পরিচর্যা, শাখা-প্রশাখা নদ-নদী খনন, দখলমুক্ত করা না গেলে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের অধিকাংশ জায়গা পানির নিচে তলিয়ে যাবে। গোটা দেশের খাদ্য নিরাপত্তা ভেঙে পড়বে। এই পরিস্থিতিতে তিস্তা বাঁচাও, নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদ তিস্তা নদী সুরক্ষার দাবিতে যে আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে তা বাংলাদেশের সকল নদী রক্ষার আন্দোলনকে পথ দেখাবে, সাহস যোগাবে।
গতকাল ২০ অক্টোবর সোমবার দুপুরে সুমি কমিউনিটি হলে ওয়ার্কার্স পার্টির রংপুর বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন। পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য, তিস্তা বাঁচাও, নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদের রংপুর বিভাগীয় সভাপতি নজরুল ইসলাম হক্কানীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য মাহমুদুল হাসান মানিক, আমিনুল ইসলাম গোলাপ, কেন্দ্রিয় সদস্য মোসাদ্দেক হোসেন লাবলু, হবিবর রহমান, সাবেক এমপি, ঠাকুরগাঁও জেলা সভাপতি ইয়াছিন আলী, কেন্দ্রিয় কমিটির বিকল্প সদস্য রুহুল আলমসহ ৮ জেলার পার্টির প্রতিনিধিরা।
সভাপতির ভাষণে নজরুল ইসলাম হক্কানী বলেন, তিস্তা নদী ব্যবস্থাপনায় যে প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে সেটা আমাদের সরকারের প্রকল্প। এটা কোন বিদেশী প্রকল্প নয়। জলবায়ু পরিবর্তনের নাজুক পরিস্থিতি মোকাবেলায় সমগ্র দেশে অববাহিকা ভিত্তিক নদী খননের পরিকল্পনা সরকার হাতে নিয়েছে। তিস্তা নদী সুরক্ষায় সরকার ও সরকার প্রধান প্রধানমন্ত্রী অগ্রাধিকার দিয়েছেন। এজন্য আমরা প্রাধানমন্ত্রীকে অভিননন্দন জানিয়েছি। আমরা চাই এ প্রকল্পের কাজ  সরকার দ্রুত শুরু করুক। সভা সঞ্চালন করেন পার্টির রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক অশোক সরকার। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)
জাতীয় বার্তা- এর অন্যান্য খবর